বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন

হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিয়ে বেছে বেছে তাড়াব : অমিত শাহ

হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিয়ে বেছে বেছে তাড়াব : অমিত শাহ

স্বদেশ ডেস্ক:

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুদের এনআরসি নিয়ে বিন্দুমাত্র শঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। শুধু হিন্দুই নয়, বৌদ্ধ, জৈন, খ্রিস্টান শরণার্থীদেরও এনআরসি-র মাধ্যমে ভারত ছাড়া হওয়ার কোনও সম্ভাবনাই নেই। তবে পশ্চিমবঙ্গে অবশ্যই এনআরসি হবে।

ক্ষমতাসীন দলটি সভাপতি জানান, নাগরিক তালিকা তৈরির আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস করিয়ে নেবে মোদী সরকার।

পুরো পশ্চিমবঙ্গে যখন নাগরিক তালিকা নিয়ে আতঙ্ক চলছে তার মধ্যেই কলকাতার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে এ কথা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিলেন বিজেপি সভাপতি ও ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পাশাপাশি এনআরসি ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মিথ্যাচার করছেন বলেও অভিযোগ করেছেন শাহ।

আনন্দবাজার পত্রিকা লিখেছে, নাগরিক তালিকা নিয়ে ভীতি ছড়ানোর অভিযোগ আনেন তিনি বিরোধী দলগুলোর বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, ‘মানুষের মনে ভীতি সৃষ্টি করতে ইচ্ছাকৃত ভাবে মিথ্যা রটানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, হিন্দুদেরও তাড়িয়ে দেওয়া হবে। এর চেয়ে বড় মিথ্যা হতে পারে না। হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ শরণার্থীদের কেউ দেশ ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য করবে না। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হলে শরণার্থীরাও দেশের নাগরিক হিসাবে সমস্ত অধিকার ও সুযোগ-সুবিধা পাবেন তাঁরা।’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, অমিত শাহ বলেন, দেশ থেকে একজন শরণার্থীও বাদ যাবেন না, দেশে একজনও অনুপ্রবেশকারী থাকবে না। বাংলায় একজনও হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, খ্রিস্টান শরণার্থীদের এনআরসি করে বিতাড়িত করা হবে না।

তিনি আরো বলেন, দেশে আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আনা হবেই। অতীতে এই বিলের বিরোধিতা করে আটকে দিয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু আজকের রাজনৈতিক বাস্তবতায় তৃণমূল চাইলেও এই বিল আটকাতে পারবে না। আমরা এই বিল পাস করাবই। এই বিল পাস করিয়েই শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেবে মোদী সরকার।

বিজেপি প্রধান বলেন, এনআরসি নিয়ে মমতা মিথ্যাচার করছেন। উনি বলেছেন, লাখো লাখো হিন্দু শরণার্থীকে তাড়ানো হবে। আমি বলছি, কোনও হিন্দু শরণার্থীকে ভারত ছাড়া করা হবে না।

অমিত শাহ বলেন, এক সময় অনুপ্রবেশ নিয়ে পার্লামেন্টে সরব হয়েছিলেন মমতাই। যদি ভুলে যান, তাহলে পুরনো ফুটেজ দেখুন। অনুপ্রবেশকারীরা তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্ক। এ জন্যই তিনি এনআরসির বিপক্ষে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877