বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:০১ অপরাহ্ন

সৌদি রাজপ্রাসাদে অস্থিরতা……!

সৌদি রাজপ্রাসাদে অস্থিরতা……!

স্বদেশ ডেস্ক: হত্যা ও মাদক বিষয়ে সৌদি আরবের শরিয়াহ আইন খুবই কট্টর, সরাসরি শিরñেদ অথবা ফাঁসি। এজন্য কাউকে গুলি করে হত্যাকান্ডের ঘটনা দেশটিতে বিরল। কিন্তু শনিবার রাতে জেদ্দায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে সৌদি বাদশাহ সালমানের দীর্ঘদিনের ব্যক্তিগত দেহরক্ষী মেজর জেনারেল আব্দুল আজিজ আল ফাঘামকে। তিনি প্রয়াত বাদশাহ আব্দুল্লাহ এবং দুই পবিত্র মসজিদের খাদেমেরও ব্যক্তিগত দেহরক্ষী ছিলেন। রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এটিকে বন্ধুর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে ‘ব্যক্তিগত’ বিরোধে খুন বললেও গোলাগুলি এবং হতাহত নিয়ে নানা ডালপালা মেলছে। কারণ জেদ্দার আল-সাতি শহরের যেখানে এ ঘটনা, বাদশাহ সব সময় সেখানে গ্রীষ্মকালীন অবকাশে যান। ফলে রাষ্ট্রীয় প্রটোকলের এমন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির মৃত্যুতে আরেকটি অভ্যুত্থান চেষ্টার আলোচনাও আসছে। রাজপ্রাসাদেও চলছে অস্থিরতা।
তেল স্থাপনায় হুতিদের সাম্প্রতিক ড্রোন হামলা নিয়ে আগেই অস্থির সৌদি প্রশাসন। হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করলেও এখন পর্যন্ত মিত্র যুক্তরাষ্ট্রকে নিয়ে দেশটির বিরুদ্ধে কার্যত কোনো পদক্ষেপ নিতে না পারায় বিব্রত। হুতিরা এরই মধ্যে গত শনিবার হাজারের বেশি সেনাকে আটকের দাবি করে তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যে প্রভাব ধরে রাখতে ইরানকে আঞ্চলিক শত্রুজ্ঞান করে সৌদি। এ জন্য মিত্রদের নিয়ে দেশটির ওপর নানা অবরোধ আরোপ করে। তেহরানকে যেসব দেশ সমর্থন করে, তাদেরও শত্রুশিবিরে ফেলা হয়। ইয়েমেন, সিরিয়া, ইরাক, কাতার ছাড়াও অনেকে সৌদি রাজতন্ত্রের বিরোধী বনে গেছেন।
২০১৫ সালে ৭৯ বছর বয়সে বাদশাহ সালমান ছেলে মোহাম্মদ বিন সালমানকে সিংহাসনের উত্তরাধিকার করেন। এরপর নিজের পথ পরিষ্কারে যুবরাজ ‘উদার রাষ্ট্র’ বানানোর জন্য সংস্কারের নামে বহু রাজনীতিক, ইমাম, রাজপরিবারের সাবেক-বর্তমান সদস্য, মন্ত্রী-আমলাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন। নভেম্বরে একদিনেই বিলিনিয়র প্রিন্স আওলাদ বিন তালাত, মিতেব বিন আব্দুল্লাহসহ ৩৮১ জনকে গ্রেপ্তার করে। এর আগে মেতে রাজপ্রাসাদের সামনে ব্যাপক গোলাগুলি ও প্রাণহানি হয়। সে সময়ে অনেকের সঙ্গে যুবরাজ মোহাম্মদ নিহতের খবর চাউর হয়। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও দেশটি সফরে গেলেও ‘সংবাদমাধ্যম’ প্রিয় যুবরাজ সামনে আসেননি। এতে আলোচনা আরও জোরালো হয়। যদিও দেড় মাসের বেশি সময় পর জনসম্মুখে আসেন যুবরাজ। এরপর কঠোর অবস্থানে আনেন মোহাম্মদ। বিশ্লেষকরা যেটিকে যুবরাজের প্রাসাদের অভ্যুত্থান চেষ্টা ঠেকানোর পদক্ষেপ বলে বর্ণনা করেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877