রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ভারতে গিয়ে নিখোঁজ আওয়ামী লীগের এমপি মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ২টি গ্রামে আরাকান আর্মির হামলা ‘কিরগিজস্তানকে আমাদের গভীর উদ্বেগ জানিয়েছি, কোনো বাংলাদেশী শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়নি’ কালশীতে পুলিশ বক্সে আগুন অটোরিকশা চালকদের স্বেচ্ছাসেবক লীগের র‌্যালি থেকে ফেরার পথে ছুরিকাঘাতে কিশোর নিহত দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় চরম তাপপ্রবাহ আসন্ন বিপদের ইঙ্গিত দ্বিতীয় ধাপে কোটিপতি প্রার্থী বেড়েছে ৩ গুণ, ঋণগ্রস্ত এক-চতুর্থাংশ: টিআইবি সাড়ে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার শহীদ ২ দিনের রিমান্ডে ‘গ্লোবাল ডিসরাপ্টর্স’ তালিকায় দীপিকা, স্ত্রীর সাফল্যে উচ্ছ্বসিত রণবীর খরচ বাঁচাতে গিয়ে দেশের ক্ষতি করবেন না: প্রধানমন্ত্রী
এবার শিক্ষার্থীদের ‘জানোয়ার’ বলে লাথি মারতে চাইলেন সেই উপাচার্য

এবার শিক্ষার্থীদের ‘জানোয়ার’ বলে লাথি মারতে চাইলেন সেই উপাচার্য

স্বদেশ ডেস্ক: আন্দোলনকারী কয়েকজন শিক্ষার্থীকে নিজের কক্ষে ডেকে নিয়ে শাসানোর সময় তাদের ‘জানোয়ার’ বলে গালি দিয়েছেন গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য খোন্দকার নাসির উদ্দিন। শিক্ষার্থীদের শাসানোর একটি অডিও সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ওই অডিওতে শোনা যায়, কোনো এক শিক্ষার্থীর উদ্দেশে উপাচার্য বলছেন, ‘এই জানোয়ার, তোর বাপ বিশ্ববিদ্যালয় চালায়? জানোয়ারের দল। লাথি দিয়া বের করে দিতে ইচ্ছে করে। তোর বাপেরে চালাইতে ক। দেখি কী চালায় তোর আব্বা। তোরা জানোয়ারের দল। কোনডারে ছাড়ব? একটার চেয়ে আরেকটা বেশি। তোরা চালা তাইলে বিশ্ববিদ্যালয়।’

শিক্ষার্থীদের গালি দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য খন্দকার নাসির উদ্দিন বলেন, ‘এসব সরকার বিরোধীদের ষড়যন্ত্র, যা অভিযোগ উঠেছে, তার ভিত্তি নাই।’

এদিকে আন্দোলনের মুখে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে ক্যাম্পাস। হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শিক্ষার্থীদের। ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধের ঘোষণাটি গতকাল শনিবার সকাল নয়টায় জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে ১ ঘণ্টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ দিলে ফুঁসে ওঠেন শিক্ষার্থীরা। সিদ্ধান্ত না মেনে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

গতকাল দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়। এ ঘটনায় ২০ শিক্ষার্থী আহত হন।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, উপাচার্যের পালিত বহিরাগত লোকজন তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। তাদেরকে ক্যাম্পাসের ভেতরে ঘেরাও করে রাখা হয়েছে।

গত কয়েকদিনের অচলাবস্থা কাটাতে প্রধামন্ত্রীর হস্তক্ষেপে চেয়েছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

এ ঘটনার প্রতিবাদে পদত্যাগ করেছেন সহকারী প্রক্টর হুমায়ুন কবির। তিনি বলেছেন, এই শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, ‘তাদের চোখের পানি সহ্য হচ্ছে না। আমি এ ঘটনার নিন্দা জানাই। একই সঙ্গে সহকারী প্রক্টর পদ থেকে পদত্যাগ করছি।’

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877