মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০২৪, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জাবি শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত অর্ধশত শিক্ষার্থীদের রক্ত ঝরানোর বীরত্বে আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী এখন আত্মহারা : মির্জা ফখরুল ঢাবির জরুরি বৈঠকে প্রভোস্ট কমিটির পাঁচ সিদ্ধান্ত হলে ফেরার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান, ‘দালাল-দালাল’ স্লোগান মিছিলের ডাক কোটাবিরোধীদের, আহতদের জন্য চাইলেন সহায়তা বিয়েতে কোনো কমতি থাকলে ক্ষমা করে দেবেন: মুকেশ আম্বানি আত্মস্বীকৃত রাজাকারদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে ছাত্রলীগ: ওবায়দুল কাদের রায়গঞ্জে আসামিকে ধরতে নদীতে ঝাঁপ, পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু ৩৪ বছর আগে ফিরতে পারলে কোটা আন্দোলনে অংশ নিতাম : রিজভী আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে শক্ত হাতে দমন : ডিএমপি কমিশনার
সিএমএইচে ভর্তি এরশাদের অবস্থা সংকটাপন্ন

সিএমএইচে ভর্তি এরশাদের অবস্থা সংকটাপন্ন

স্বদেশ ডেস্ক: জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে তাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়েছে। সংকটাপন্ন এরশাদকে বর্তমানে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দলের সাবেক মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার।

হাসপাতাল থেকে ফিরে তিনি আমাদের সময়কে বলেন, ‘তাকে ভালো চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আশা করছি চিকিৎসকদের আন্তরিকতায় এবং আল্লাহর রহমতে তিনি আমাদের মাঝে সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন।’ জাপা মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ‘স্যারের অবস্থা সংকটাপন্ন। হাসপাতালে ভর্তি আছেন। ডাক্তাররা উন্নত চিকিৎসাই দিচ্ছেন। আল্লাহর কাছে দোয়া করি, উনি দ্রুত সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসুন।’

দেশের বাইরে নেওয়া হবে কিনা-জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সিএমএইচের চিকিৎসকরা যে পরামর্শ দেবেন সে অনুযায়ীই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ডাক্তার যদি মনে করেন দেশের বাইরে নেওয়া প্রয়োজন, তাহলে তাই করা হবে।’ কয়েকদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন এরশাদ। গতকাল সকালে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে সিএমএইচে নেওয়া হয়। রক্তে হিমোগ্লোবিন ও লিভারের সমস্যায় তিনি দীর্ঘদিন ধরেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। সিএমএইচের পাশাপাশি সিঙ্গাপুরে নিয়মিত শারীরিক চেকআপ করান জাপা চেয়ারম্যান।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গত ২০ নভেম্বর ইমানুয়েল কনভেনশন সেন্টারে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সামনে সর্বশেষ আনুষ্ঠানিক বক্তব্য রাখেন এরশাদ। অসুস্থতার কারণে এর পর আর কোনো কর্মসূচিতেই অংশ নেননি। ৬ ডিসেম্বর নিজ কার্যালয়ের সামনে গেলেও গাড়িতে বসেই কথা বলে চলে যান।

চিকিৎসার জন্য ১০ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুরে যান এরশাদ। ভোটের তিন দিন আগে ২৬ ডিসেম্বর দেশে ফিরলেও নির্বাচনী ক্যাম্পেইনে যোগ দেননি। এমনকি নিজের ভোটও দিতে যেতে পারেননি সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। ভোটের পর শপথ নেন আলাদা সময়ে গিয়ে। সেদিনও স্পিকারের কক্ষে হাজির হয়েছিলেন হুইলচেয়ারে বসে। ২০ জানুয়ারি ফের সিঙ্গাপুরে যান চিকিৎসার জন্য। সেখান থেকে ফেরেন ৪ ফেব্রুয়ারি। এর পর সংসদ অধিবেশনে মাত্র একদিনের জন্য হাজির হয়েছিলেন, তাও হুইলচেয়ারে ভর করেই।

কূটনৈতিকদের সম্মানে আয়োজিত ইফতারেও যোগ দিয়েছিলেন কয়েক মিনিটের জন্য। নানা নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে তিনি দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের পদে আসীন করেন ভাই জিএম কাদেরকে। নিজের সম্পত্তির বেশিরভাগই দান করে দেন ট্রাস্টে। সেই থেকে জনসম্মুখে তেমন আসছেন না এরশাদ। হাসপাতাল ও বাসার মধ্যেই সীমাবদ্ধ তার দৈনন্দিন জীবন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877