রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৬:১৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
স্বেচ্ছাসেবক লীগের র‌্যালি থেকে ফেরার পথে ছুরিকাঘাতে কিশোর নিহত দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় চরম তাপপ্রবাহ আসন্ন বিপদের ইঙ্গিত দ্বিতীয় ধাপে কোটিপতি প্রার্থী বেড়েছে ৩ গুণ, ঋণগ্রস্ত এক-চতুর্থাংশ: টিআইবি সাড়ে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার শহীদ ২ দিনের রিমান্ডে ‘গ্লোবাল ডিসরাপ্টর্স’ তালিকায় দীপিকা, স্ত্রীর সাফল্যে উচ্ছ্বসিত রণবীর খরচ বাঁচাতে গিয়ে দেশের ক্ষতি করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জেরুসালেম-রিয়াদের মধ্যে স্বাভাবিককরণ চুক্তির মধ্যস্থতায় সৌদি বাইডেনের সহযোগী ‘ইসরাইলকে ফিলিস্তিন থেকে বের করে দাও’ এসএমই মেলার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী ইরান ২ সপ্তাহের মধ্যে পরমাণু অস্ত্র বানাতে পারবে!
ভিডিও-ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

ভিডিও-ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

স্বদেশ ডেস্ক: রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বন্ধুদের নিয়ে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করে সেই দৃশ্যের ভিডিও ধারণ করা হয়। পরে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে ফের ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত শেখ আব্দুল আহাদ (১৯) মিরপুর ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান বলে পুলিশকে জানিয়েছে। এ ঘটনায় নির্যাতিতার মা বাদী হয়ে গত সোমবার রাতে যাত্রাবাড়ী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

শারীরিক পরীক্ষার জন্য ১৪ বছর বয়সী ওই স্কুলছাত্রীকে গতকাল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠিয়েছে পুলিশ। অন্যদিকে আহাদকে আদালতে পাঠিয়ে সাত দিনের রিমান্ড চাইলে ঢাকার সিএমএম আদালত একদিন মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা যাত্রাবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জুলফিকার জানান, এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ এবং বন্ধুদের দিয়ে ভিডিও ধারণ করে ইন্টারনেটে ছাড়ার হুমকি দিয়ে ফের ধর্ষণের অভিযোগে শেখ আব্দুল আহাদ নামে এক যুবক ও তার তিন বন্ধুর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভুক্তভোগীর মা। অভিযুক্ত অন্যরা হলোÑ মো. হৃদয়, রুবেল ও সবুজ। গত সোমবার দায়ের করা ওই মামলায় অভিযুক্ত আব্দুল আহাদকে

গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আহাদ বলেছে, সে মিরপুরে ফায়ার স্টেশন অফিসে ফায়ারম্যান হিসেবে কর্মরত। জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি তার জব্দকৃত মোবাইল ফোন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। মামলায় অভিযুক্ত অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে কিশোরীর মা আমাদের সময়কে জানান, ধলপুরের একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী তার মেয়ের সঙ্গে ফায়ারম্যান আহাদের তিন বছরের প্রেম ছিল। বিয়ের প্রলোভনে গত বছর ২৬ জুলাই মেয়েটিকে আহাদ তার বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে। এর পর একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করে সেই দৃশ্য বন্ধু হৃদয়, রুবেল ও সবুজকে দিয়ে গোপনে ভিডিও করে রাখে আহাদ। ২০ দিন আগে ফের বাসায় ডাকলে অস্বীকৃতি জানায় ওই স্কুলছাত্রী।

এর পর ৪ সেপ্টেম্বর ওই মেয়ের মেসেঞ্জারে সেই ভিডিও পাঠায় আহাদ। তার ডাকে সাড়া না দিলে সেই দৃশ্য ইন্টারনেটে ছেড়ে ভাইরাল করে দেওয়ারও হুমকি দেয়। উপায়ান্তর না পেয়ে ওই কিশোরী ৬ সেপ্টেম্বর বিকালে আহাদের বাসায় গেলে সে ভয়ভীতি দেখিয়ে ফের ধর্ষণ করে। সেই দৃশ্যও ধারণ করে আহাদের তিন বন্ধু।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877