শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৯:৪০ অপরাহ্ন

একাকীত্ব বাড়ছে রওশনের……?

একাকীত্ব বাড়ছে রওশনের……?

স্বদেশ ডেস্ক: সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর এক সপ্তাহের মধ্যেই শীর্ষ নেতৃত্ব নিয়ে দলে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। এরশাদের জীবদ্দশায়ই তার অবর্তমানে ছোট ভাই জি এম কাদেরকে দলের চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হলেও দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ তা মেনে নেননি। এমন অবস্থায় এরশাদের মৃত্যুর পর দলের প্রেসিডিয়াম সদস্যরা জি এম কাদেরকে চেয়ারম্যান করার ঘোষণা দিলে জাপায় আবারও বিভক্তি দেখা দেয়। তবে তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত বেশির ভাগ নেতাকর্মী এরশাদের শেষ সিদ্ধান্তকেই দলের জন্য মঙ্গলজনক মনে করছেন। জাতীয় পার্টির একাধিক শীর্ষ নেতা এই প্রতিবেদককে বলেন, দলে এরশাদপতœী রওশনের পক্ষে জনমত নেই। কিন্তু দেবর-ভাবীর বিরোধকে কয়েকজন সিনিয়র নেতা উসকে দিচ্ছেন। ফলে দলটি ভাঙনের মুখে পড়তে পারে। তারা মনে করেন, জি এম কাদেরের নেতৃত্বেই দলটি টিকে থাকতে পারে। আর বিরোধ যদি বাড়ে তাহলে জাপার নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে ঢুকে পড়বেন। তারা বলেন, রওশন এরশাদ যদি ষড়যন্ত্র করেন তাহলে দল ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কারণ দলের নেতৃত্ব দেওয়ার মতো যোগ্যতা তার নেই। জাপার অধিকাংশ প্রেসিডিয়াম সদস্য মনে করেন, রওশন এরশাদের উচিত জি এম কাদেরকে সহযোগিতা করা। যারা রওশনকে উসকে দিচ্ছেন তারা দলের ভালো চান না। দলের চেয়ারম্যান হিসেবে জি এম কাদের ও বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে বেগম রওশন এরশাদের যৌথ নেতৃত্বে দল চললে জাপায় ভাঙন হবে না।

এ বিষয়ে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি বলেন, দল গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চলবে। দলের চেয়ারম্যান জীবিত অবস্থায় তার অবর্তমানে দল পরিচালনা করার জন্য গঠনতন্ত্রের ২০/১-ক ধারা মোতাবেক তার ছোট ভাই জি এম কাদেরকে দায়িত্ব দিয়ে গেছেন এবং বলেছেন তার অবর্তমানে জি এম কাদেরই হবেন পার্টির চেয়ারম্যান। একই গঠনতন্ত্রে রওশন এরশাদকে বিরোধী দলের উপনেতা বানানো হয়েছে। উনি বিরোধী দলের নেতা হবেনÑ এটাই স্বাভাবিক। এখানে ভুল-বোঝাবুঝির কিছু আছে বলে আমি মনে করি না। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাপার সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি বলেন, এরশাদের ইচ্ছা ও তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী জি এম কাদের পার্টির চেয়ারম্যান, রওশন এরশাদ বিরোধী দলের নেতা। তাদের যৌথ নেতৃত্বেই পার্টি পরিচালিত হবে। এর বাইরে গিয়ে নিজেদের ব্যক্তিস্বার্থ হাসিল করার জন্য পার্টির দুই-একজন নেতা চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র করছেন। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের কাছে তাদের কোনোই গ্রহণযোগ্যতা নেই। তিনি বলেন, আর কাউকে দল নিয়ে খেলা করতে দেবো না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877