রবিবার, ১৬ Jun ২০২৪, ০২:১১ পূর্বাহ্ন

ই-গেট বন্ধ, হজ ব্যবস্থাপনা বাধাগ্রস্ত

ই-গেট বন্ধ, হজ ব্যবস্থাপনা বাধাগ্রস্ত

সৌদি আরবে স্বয়ংক্রিয় সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি (ই-গেট) বন্ধ থাকায় সেখানকার মোয়াল্লেমদের সঙ্গে চুক্তি করতে পারছে না বাংলাদেশি হজ এজেন্সির মালিকরা। ফলে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে হজ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম। তবে দ্রুতই ই-গেট খুলে দেওয়া হবে বলে নিশ্চিত করেছে সংশ্লিষ্ট সূত্র। এদিকে চলতি বছর যেসব বাংলাদেশি হজ পালনের জন্য সৌদি আরব যাবেন, তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে টিকা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

গতকাল শনিবার হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত চিঠিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, চলতি বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৯৮ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার বাংলাদেশি হজ পালনের জন্য সৌদি আরব যাবেন। বেসরকারি ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে অংশ নিতে ৫২৮টি হজ এজেন্সিকে অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

এসব এজেন্সিকে তাদের হজযাত্রীর জন্য সৌদিতে ১৫ রমজানের মধ্যে বাড়িভাড়া সম্পন্ন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু গতকাল শনিবার পর্যন্ত সব এজেন্সি এ কাজ সম্পন্ন করতে পারেনি। এ বিলম্বের কারণে অনেক হজযাত্রীর জন্য নির্ধারিত দূরত্ব থেকে বেশি দূরে বা পাহাড়ের ওপর বাড়িভাড়া করতে হবে। তবে হজ এজেন্সি মালিকদের অভিযোগ, বর্তমানে হজ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম অনলাইনে সম্পন্ন করা হয়ে থাকে।

আর তা ই-হজ এবং ই-গেট- এ দুই প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন হয়ে থাকে। ই-হজ সিস্টেমের মাধ্যম সৌদিতে বাড়িভাড়াসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা হয়। ই-গেট সিস্টেমের মাধ্যমে মোয়াল্লেম নির্বাচন, মিনা, আরাফা ও মুজদালিফা সেবাসংক্রান্ত কাজগুলো সম্পন্ন করা হয়ে থাকে। কিন্তু ই-হজ সিস্টেম চালু থাকলেও ই-গেট সিস্টেম গতকাল শনিবার পর্যন্ত বন্ধ ছিল।

তারা আরও জানান, হজ পালন নির্বিঘ্ন করতে সৌদি আরবে হজযাত্রীদের জন্য বাড়িভাড়া করার পাশাপাশি অন্যান্য সেবা প্রদানে মোয়াল্লেমের সঙ্গে চুক্তি করতে হয়। কিন্তু ই-গেট বন্ধ থাকায় মোয়াল্লেমের সঙ্গে চুক্তিসহ অন্য কাজগুলো আটকে রয়েছে, যা সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করছে। হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) প্রেসিডেন্ট এম শাহাদাত হোসাইন তছলিম বলেছেন, ‘সৌদি আরবে হজযাত্রীদের বাড়িভাড়া শেষ পর্যায়ে। এখন এয়ারলাইন্সের টিকিট সংগ্রহ করা হচ্ছে।

তবে ই-গেট বন্ধ থাকায় আমাদের এজেন্সি মালিকরা সৌদি আরবের মোয়াল্লেম, মিনা, আরাফা ও মুজদালিফার সেবাগুলো ঠিক করতে পারছেন না। ই-হজ সিস্টেম এবং ই-গেট যদি সব সময় খোলা না থাকে, তা হলে হজ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম করা যাবে না। আমরা জেনেছি শনিবার রাত ৮টায় (সৌদি আরবের সময়) খুলে দেওয়া হবে।’

স্বাস্থ্য পরীক্ষার নির্দেশ : বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যেসব বাংলাদেশি হজ করতে সৌদি আরব যাবেন, তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং ম্যানিনজাইটিস ও ইনফুয়েঞ্জার টিকা দেওয়া ১৬ জুন থেকে শুরু হবে। এ ছাড়া ৩০ জুন থেকে রাজধানীর আশকোনার হজক্যাম্পের মেডিক্যাল সেন্টারে স্বাস্থ্য পরীক্ষাকেন্দ্র খোলা হবে। হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে ম্যানিনজাইটিস ও ইনফুয়েঞ্জার টিকা নিয়ে সংগৃহীত স্বাস্থ্য সনদ বিমানবন্দরে প্রদর্শনের জন্য নিজ হেফাজতে রাখতে হবে। ঢাকা জেলা ও মহানগরের হজযাত্রীরা স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে টিকা নিতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ ও মিটফোর্ড হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, মুগদা জেনারেল হাসপাতাল, সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল, বাংলাদেশ সচিবালয় ক্লিনিক, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল, কেন্দ্রীয় পুলিশ লাইন হাসপাতালে যোগাযোগ করবেন। এ ছাড়া অন্যান্য জেলার হজযাত্রীরা বিভাগীয় সরকারি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে টিকা নিতে পারবেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877