বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:০৯ অপরাহ্ন

কাশ্মীরের স্বায়ত্ত্বশাসন বাতিলের বৈধতা দিলেন সুপ্রিম কোর্ট

কাশ্মীরের স্বায়ত্ত্বশাসন বাতিলের বৈধতা দিলেন সুপ্রিম কোর্ট

স্বদেশ ডেস্ক

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল সংক্রান্ত মামলা নিয়ে রায় দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। ২০১৯ সালে মোদি সরকার সংবিধানের ৩৭০ ধারা অনুযায়ী জম্মু-কাশ্মীরকে যে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া হয়েছিল তা বাতিল করে। সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করা হয়। আজ সোমবার এই মামলার রায়ে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের ভূখণ্ড থেকে আলাদা নয়, তাই তাদের কেন্দ্রীয় সংবিধান মেনেই রাজ্য পরিচালনা করতে হবে।

একসময় জম্মু ও কাশ্মির হিসেবে পরিচিত রাজ্যটি ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে উপমহাদেশের স্বাধীনতা লাভের সময় ভারতের সাথে যুক্ত হয়। কাশ্মির হিমালয় অঞ্চলে অবস্থিত একটি এলাকা যেটিকে ভারত ও পাকিস্তান দুই দেশই নিজেদের বলে দাবি করে।

ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী এই রাজ্যটি বিশেষ মর্যাদা পেত। অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাজ্যটিকে বিশেষ ধরণের স্বায়ত্বশাসন ভোগ করার অধিকার দেয়, যা রাজ্যটিকে নিজস্ব সংবিধান, আলাদা পতাকা এবং আইন তৈরি করার অনুমোদন দেয়। পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা এবং যোগাযোগ বিষয়ক ব্যাপারের নিয়ন্ত্রণ থাকে কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে।

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এই বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে মোদি সরকার। ১ কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যা অধুষ্যিত এই এলাকায় এরপর জম্মু ও কাশ্মির নামে দুটি আলাদা প্রশাসনিক অঞ্চল গঠন করা হয়।

সুপ্রিম কোর্ট জানায়, এই অঞ্চলে ২০২৪ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্বাচন আয়োজন করতে হবে। পাঁচ বিচারকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চের রায়ে বলা হয়, যতদ্রুত সম্ভব একে সাধারণ রাজ্যে গঠন করতে হবে। প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, জম্মু-কাশ্মীর অন্যান্য রাজ্যের চেয়ে আলাদা নয়।

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি আরও জানান, ভারতের প্রতিটি রাজ্যের হাতেই আইনি এবং প্রশাসনিক ক্ষমতা আছে। বিভিন্ন রাজ্যের জন্য যে বিশেষ ব্যবস্থা আছে, তা সংবিধানের ৩৭১ ধারার ‘এ’ অনুচ্ছেদ থেকে ‘জে’ অনুচ্ছেদ থেকেই বোঝা যায়। যা সামঞ্জস্যহীন যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর উদাহরণ। তাই জম্মু ও কাশ্মিরের কোনও অভ্যন্তরীণ সার্বভৌমত্ব নেই। অর্থাৎ ভারতের অন্যান্য রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মতোই হল জম্মু ও কাশ্মির।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের মতে, ৩৭০ ধারা হল সংবিধানের অস্থায়ী বিধান।’ যা অভ্যন্তরীণ কারণে কার্যকর করা হয়েছিল। যুদ্ধের মতো যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, সেটার জন্যই ওই ধারা কার্যকর করা হয়েছিল জম্মু ও কাশ্মীরে। সেজন্যই সংবিধানের ২১ ধারার আওতায় বিষয়টি রাখা হয়েছে।’

সোমবার সকাল থেকেই কাশ্মিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। কাশ্মিরে পুলিশ মহাপরিদর্শক ভিকে বিরডি বলেন, ‘আমরা যেকোনো মূল্যে কাশ্মিরে শান্তি নিশ্চিতে বদ্ধ পরিকর।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877