শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১২:৫৭ অপরাহ্ন

ভালোবাসার টানেই দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর ইসলাম গ্রহণ করে আমিরাতে পাড়ি

ভালোবাসার টানেই দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর ইসলাম গ্রহণ করে আমিরাতে পাড়ি

স্বদেশ ডেস্ক:

১৯ বছরের খ্রিস্টান তরুণীকে অপহরণ করে ‘জঙ্গি’ সংগঠনে যোগ দিতে বাধ্য করা হয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এমনই প্রচার হচ্ছিল। রোববার যাবতীয় জল্পনা নস্যাৎ করে দিলেন সিয়ানি বেনি নিজেই। স্বেচ্ছায় আবুধাবি গিয়ে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেছেন বলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি। এখন তার নাম অবশ্য আয়েসা। যারা তার নামে ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে, ভারত সরকারের কাছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টা পর্যন্ত দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করেছিলেন বেনি। দুপুর পৌনে তিনটেয় গো এয়ারের বিমানে আবুধাবি উড়ে যান তিনি। বেনির দাবি প্রেমিককে বিয়ে করতেই সেখানে গিয়েছেন তিনি। কোনো ‘জঙ্গি’ সংগঠনে যোগ দিতে নয়। ৯ মাস সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ব্যক্তির সঙ্গে তার আলাপ হয়।
বেনির বাড়ি কেরলের কোঝিকোড়ে। উগ্রবাদী সংগঠন আইএসে যোগ দেয়ার জন্য মেয়েকে অপহরণ করা হয়েছে বলে দিল্লিতে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বেনির বাবা-মা। তার সহপাঠীরাও বিষয়টি নিয়ে ভারতের প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন জানিয়েছেন।

এরপরেই প্রকাশ্যে মুখ খুলেছেন ওই তরুণী। সাফ জানিয়েছেন, ‘আমি ভারতের একজন সাবালক নাগরিক এবং আমার ব্যাপারে আমি নিজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারি। কেউ আমাকে জোর করেনি।’

বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন, কেরল এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠিও দিয়েছেন তিনি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2019 shawdeshnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
themebashawdesh4547877